ইউনুসের চহ্ন তিন দিন তিন রাত?

মথি ১২:৪০—(প্রথম প্রশ্ন) “ঈসা মসীহ বলেছিলেন যে তিনি কবরে তিন দিন এবং তিন রাত থাকবেন, কিন্তু তিনি করবে শুধু দুই রাত এবং পুরো এক দিন কবরে ছিলেন।”

ইঞ্জিলে বলা হয়নি যে ঈসা শুক্রবারে ক্রুশবিদ্ধ হয়েছিলেন – বলা হয়েছে যে তিনি বিশ্রামবারের আগে “প্রস্তুতি দিবসে” ক্রুশবিদ্ধ হয়েছিলেন। চলতি ধারণা ধরে নিয়েছে যে সেটা শুক্রবার, যেহেতু বিশ্রামবার সাধারণত শনিবারে হত। কিন্তু আসলে দুই ধরনের বিশ্রামবার হিল:

  1. সাপ্তাহিক সাধারণ বিশ্রামবার (সবসময় শনিবারে)
  2. “বিশেষ’ বা ‘মহাদিন’ বিশ্রামবারগুলো যেগুলো হিজরত ১২ ও লেবীয় ২৩ অধ্যায়ে বর্ণিত আছে; সেগুলো মসলমান ঈদের মত সপ্তাহের যেকোন দিনে পড়তে পারে।

ঈসা মসীহ কোন ধরনের বিশ্রামবারের আগে ক্রুশবিদ্ধ হয়েছিলেন? ইউহোন্না ১৯:৩১ আয়াতে বলা হয়েছে যে সেটা সাধারণ বিশ্রামবার নয় বরং উদ্ধার ঈদের “বিশেষ’ বা ‘মহাদিন’ বিশ্রামবার ছিল (ইহুদি বর্ষপুঞ্জিতে নিসান মাসের ১৫ তারিখ)। তাতে বোঝা যায় সেই সপ্তাহ দুটি বিশ্রামবার পড়েছে – প্রথম বিশেষ বিশ্রামবার (বৃহস্পতিবার) এবং তারপরে সাধারণ বিশ্রামবার (শনিবার)।
আমরা যখন মসীহের মৃত্যু ও পুনরুত্থানের মাঝখানের ঘটনাগুলো দেখি, আমরা আরেকটি ইঙ্গিত পাই যে দুটি বিশ্রামবার মাঝখানে ছিল। লূকে বলা হয়েছে:

“যে স্ত্রীলোকেরা ঈসার সংগে গালীল থেকে এসেছিলেন তাঁরা ইউসুফের পিছনে পিছনে গিয়ে কবরটি দেখলেন এবং ঈসার লাশ কিভাবে দাফন করা হল তাও দেখলেন। তারপর তাঁরা ফিরে গিয়ে তাঁর লাশের জন্য খোশবু মসলা এবং মলম তৈরী করলেন। এর পরে তাঁরা মূসার হুকুম মত বিশ্রামবারে বিশ্রাম করলেন।” (লূক ২৩:৫৫)

এর পরে মার্কে আরো বিস্তারিত পড়ি:

“বিশ্রামবার পার হয়ে গেলে পর মগ্‌দলীনী মরিয়ম, ইয়াকুবের মা মরিয়ম এবং শালোমী ঈসার লাশে মাখাবার জন্য খোশবু মলম কিনে আনলেন। সপ্তার প্রথম দিনের খুব সকালে, সূর্য উঠবার সংগে সংগেই তাঁরা কবরের কাছে গেলেন।” (মার্ক ১৬:১,২)

আমরা যদি ধরে নিই যে ঈসা মসীহের ক্রুশবিদ্ধ হয়েছে শুক্রবার, এটা সম্ভব না, কারণ শুক্রবার রাতে ফিরে গিয়ে খুশবু প্রস্তুত করার সময় থাকত না। এই কাজ ইহুদি বিশ্রামবারের নিয়মে নিষিদ্ধ, এবং আয়াতে লেখা আছে যে এরা বিশ্রামবার পালন করেছিল। তাই ঈসার মৃত্যুর পরের দিনের বিশ্রামবার এবং সপ্তাহের প্রথম দিনের আগের বিশ্রামবারের মাঝামাঝি আরেকটি দিন ছিল।

ইঞ্জিলে বলা হয়েছে যে মহিলাগুলো কবরে চলে এসেছে “ভোর বেলায়, অন্ধকার থাকতেই” (ইউহোন্না ২০:১; লূক ২৪:১), এবং তাদের আসার আগেই ঈসা পুনরুত্থিত হয়েছিলেন। এটা সাধারণ চিন্তায় কবরে ‘তিন রাত তিন দিন’ হয়।

দ্বিতীয় একটি ব্যাখ্যা
আরেকটি সম্ভাব্য ব্যাখ্যা হল ইহুদি ভাষায় ও সংস্কৃতিতে দিন-রাত হিসাব করা নিয়ে। ইহুদি ভাষার ব্যবহারে, কোন দিনের হিসাবে দিনের যেকোন অংশ এক দিন হিসেবে গণ্য করা হয়, এবং দিন হিসাবে করা হয় সন্ধ্যায় থেকে সন্ধ্যায় পর্যন্ত। তাই যেহেতু ঈসা মসীহ কবরে ছিলেন শুক্রবারের কিছু অংশ, শনিবার, এবং রবিবারের কিছু অংশ, হিব্রু হিসাবে তিনি তিন দিন কবরে ছিলেন।

কিন্তু “তিন রাত” কিভাবে ব্যাখ্যা করব? “তিন দিন তিন রাত” হচ্ছে একটি সাধারণ হিব্রু ভাষার কথা যার অর্থ শুধু “তিনি দিন”—তখনকার ভাষার প্রথায় কেউ “তিন দিন দুই রাত” বলতেন না। ইংরেজী ভাষায় এরকম একটি কথা আছে “biweekly” যার সঠিক পারিভাষিক অর্থ ‘দুই সপ্তাহ পর পর’, কিন্তু চলতি ব্যবহারে তার অর্থ ‘সপ্তাহে দুই বার’

কিতাবুল মোকাদ্দসের ইষ্টের কিতাবে এই “তিন দিন তিন রাত” কথার চলতি ব্যবহারের আরেকটি উদাহরণ পাওয়া যায়। রানী ইষ্টের ঘোষণা দিলেন যেন “তিন দিন তিন রাত” ধরে পুরো ইহুদি জাতি রাতদিন রোজা রাখবেন (ইষ্টার ৪:১৬)। কিন্তু তৃতীয় দিনে (শুধু দুই রাতের পরে), তিনি রাজার ঘরে ঢুকলেন এবং রোজা শেষ হয়ে গেল। কিতাবুল মোকাদ্দসের বাইরের আরেকটি হিব্রু লেখায় (তোবিয়াহ্ কিতাবে, ২০০ খ্রীষ্টপূর্ব) আরো স্পষ্ট একটি উদাহরণ পাওয়া যায়:

“…এই কথার পরে তিনি ঘরে ঢুকে তিন দিন তিন রাত ধরে কোনো খাবার বা পানি খাননি, এবং কাঁদতে কাঁদতে অনবরত আল্লাহ্‌র কাছে মিনতি করলেন যেন তার লজ্জা দূর হয়। তারপর, তৃতীয় দিনে, তার মোনাজাত শেষ করে তিনি আল্লাহ্‌র প্রশংসা করলেন…” (৩:১২-১৩)

পাক-কিতাবের কথা তখনকার ভাষার নিয়ম অনুযায়ী ব্যাখ্যা করতে হবে। যেমন কোরআন শরীফে আল্লাহ্‌র ক্ষেত্রে সাধরনত বহুবচন ব্যবহার করা হয় (“আমরা”)— এই ক্ষেত্রে আক্ষরিক সংজ্ঞার্থ ভুল, কিন্তু চলতি ব্যবহারের অর্থ সঠিক।

অনুগ্রহ করে উত্তর দিবেন সেই বিশেষ বিশ্রামবার আর সাধারণ বিশ্রামবার কি একই দিনে অর্তাত শনিবারে পড়তে পারেনা? কিভাবে বুঝলেন সেই বিশেষ বিশ্রামবার বৃহস্পতিবার?

বিশেষ বিশ্রামবার সপ্তাহের যেকোনো দিনে পরতে পারে। কিন্তু অমিলের সম্ভাব্য সমাধান দেখানোর জন্য আমাকে শুধু একটি ব্যাখ্যা দিলে সফল হয়। সমালোচকের কাজ আরও অনেক কঠিন। কোন বইয়ের ভুল ধরার জন্য একজনকে প্রমাণ করতে হচ্ছে যে অমিল মিলানোর কোনো সম্ভাব্য উপায় নেই। আমি দাবি করছি না যে আমার এই সমাধান ১০০% নিশ্চিত, বরং আমি দাবি করছি যে এটা একটি সম্ভব ব্যাখ্যা। আমার কাজ আরও সহজ। কিন্তু আমি মনে করি এটা সবচেয়ে সম্ভাব্য ব্যাখ্যা।

কোনো প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে আমরা শুনতে চাই! নিচের ফর্ম দিয়ে যোগাযোগ করুন:

Enable javascript in your browser if this form does not load.

Leave a Reply

Your email address will not be published.