“বিভিন্ন খ্রীষ্টান দলের কি আলাদা বাইবেল আছে?”

“বিভিন্ন খ্রীষ্টান দলের আলাদা বাইবেল আছে”

খ্রীষ্টধর্মের সকল শাখা—ক্যাথলিক, প্রোটেস্ট্যান্ট, অর্থোডক্স, লুথেরান, ইত্যাদি, তাদের প্রত্যেকে হুবহু একই তৌরাত (তোরাহ্‌), জবুর (গীতসংহিতা), এবং ইঞ্জিল (নতুন নিয়ম) আছে। কোরআনে উল্লেখিত এই তিনটি খণ্ডগুলো তুলনা করলে কোন পার্থক্য নেই। এমনকি, ইহুদী ধর্মাবলম্বিদের তৌরাত এবং জবুর শরীফ হুবহু একই, যদিও কিতাবের ক্রম একটু আলাদাভাবে সাজানো হয়েছে।

“আপক্রিফা’ নামক কিছু খণ্ড নবীদের কিতাবের সঙ্গে দেওয়া উচিত কিনা এই নিয়ে প্রোটেস্ট্যান্ট এবং ক্যাথলিক/অর্থোডক্স খ্রীষ্টানদের মধ্যে মতের অমিল রয়েছে। এগুলো প্রোটেস্টান্টেরা অস্বীকার করে, কারণ সেগুলো নবীদের আমলে লেখা হয় নি, কিন্তু ক্যাথলিকেরা সেগুলোকে কিতাবুল মোকাদ্দসের মধ্যে রাখে এবং সেগুলো ‘গৌণ’ বা ‘উপকারি’ বলেন। ইসলামের মধ্যে এমন রকমের একটি বিতর্ক আছে – শিয়ারা বলে থাকেন যে কোরআনের বাড়তি দুটি সূরা আছে যেগুলো সুন্নিরা বাদ দিয়েছে। কিন্তু এই ধরণের বিতর্ক তো কিতাবের বিশুদ্ধতা পরিবর্তন করে না।

কোনো প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে আমরা শুনতে চাই! নিচের ফর্ম দিয়ে যোগাযোগ করুন:

Enable javascript in your browser if this form does not load.

Leave a Reply

Your email address will not be published.