ইশাইয়া ২৯:১১-১৩ – “একজন অশিক্ষিত নবীর কাছে কিতাব”

ইশাইয়া ২৯:১১-১৩ উল্লেখিত তথাকথিত ভবিষ্যদ্বানী

কিতাবুল মোকাদ্দসে মুহাম্মাদ(সাঃ)-এর ভবিষ্যদ্বানী হিসেবে জাকির নায়েক উল্লেখ করতে পছন্দ করেন “বুক অভ আইজায়ার,অধ্যায় ১২, অনুচ্ছেদ ২৯” (আসলে অধ্যায় ২৯ , ১২ আয়াত !)। জাকির নায়েক যেভাবে উদ্ধৃতি দেন মনে হয় সেটা একটি আশ্চর্য ভবিষ্যদ্বানী:

“একজন নবীকে যিনি শিক্ষিত নয়, একটি কিতাব দেওয়া হবে।”

কিন্তু যদি আমরা যেকোন অনুবাদের কিতাবুল মোকাদ্দস নিজে খুলে দেখি, আমরা লক্ষ করবো যে নায়েক চতুর ভাবে “নবী” শব্দটা উদ্ধৃতির মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছে যেখানে মূল হিব্রু ভাষায় সেই শব্দ নেই:

“…যে তেলাওয়াত করতে জানে না তাকে কিতাবটা দিয়ে যদি বলা হয়, “দয়া করে এটা তেলাওয়াত করুন,” তবে জবাবে সে বলবে, “আমি তেলাওয়াত করতে জানি না।” (ইশাইয়া ২৯:১২)

এখন যদি আমরা কিতাবে এই অধ্যায়ের প্রসঙ্গ মূল্যায়ন করি, তাহলে বোঝা যায় যে এখানে নবী ইশাইয়ার শ্রোতাদের অহেতুক অজুহাত নিয়ে বলা হচ্ছে। এখানে গোটা অনুচ্ছেদটা তুলে দেওয়া হল:

“…গোটা দর্শনটাই তোমাদের কাছে কেবল সীলমোহর করা গুটানো-কিতাবের মত হয়েছে। যে তেলাওয়াত করতে জানে তাকে যদি সেই কিতাবটা দিয়ে বলা হয়, “দয়া করে এটা তেলাওয়াত করুন,” তবে জবাবে সে বলবে, “আমি পারব না, কারণ এটা সীলমোহর করা হয়েছে।” কিংবা যে তেলাওয়াত করতে জানে না তাকে কিতাবটা দিয়ে যদি বলা হয়, “দয়া করে এটা তেলাওয়াত করুন,” তবে জবাবে সে বলবে, “আমি তেলাওয়াত করতে জানি না।” দ্বীন-দুনিয়ার মালিক বলছেন, “এই লোকেরা মুখেই আমার এবাদত করে আর মুখেই আমাকে সম্মান করে, কিন্তু তাদের দিল আমার কাছ থেকে দূরে থাকে।” (ইশাইয়া ২৯:১১-১৩)

তাহলে, এই আয়াতটি যদি একটা ভবিষ্যদ্বাণীই হতো (বিশ্লেষণে যদিও এটা আসলে কোনো ভবিষ্যদ্বানী নয়), তবে তো মানব জাতির ইতিহাস জুড়ে সকল শিক্ষিত (১১ আয়াত) ও অশিক্ষিত (১২ আয়াত) ব্যাক্তির দ্বারাই এই ভবিষ্যদ্বানী পূর্ণ করা সম্ভব! আসলে এই আয়াতে সেই সব লোকদের বিষয়ে বলা হয়েছে যারা ইশাইয়া নবীর ভবিষ্যদ্বানীর বিরুদ্ধে অহেতুক অজুহাত দাঁড় করায়। জাকির নায়েক তার দর্শকদের উদ্দেশ্যমূলকভাবে একটা ভ্রান্ত ধারণা দিয়ে তার সততার উপর সন্দেহ সৃষ্টি করছেন।

  1. …. ডাঃ জাকির নায়েক, ইসলাম ও খ্রিস্ট ধর্মের সাদৃশ্য, পিস পাবলিকেশন-ঢাকা, ২০০৮, পৃষ্ঠা ১৯
  2. ডাঃ জাকির নায়েক, কুরআন কি আল্লাহ্‌র বাণী?, পিস পাবলিকেশন-ঢাকা, ২০০৮, ৪৯

কোনো প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে আমরা শুনতে চাই! নিচের ফর্ম দিয়ে যোগাযোগ করুন:

Enable javascript in your browser if this form does not load.

Leave a Reply

Your email address will not be published.